সাপের পেট থেকে নারী উদ্ধার

Posted by

বিশ্ব প্রতিদিন: ইন্দোনেশিয়ায় এক নারী নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর বিশাল আকৃতির একটি অজগর সাপের পেট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।এনডিটিভি জানায়, ১৬ ফুট দৈর্ঘ্যের এক প্রজাতির পাইথনের পেটের ভেতরে ৪৫ বছর বয়সী ফরিদার দেহ খুঁজে পান তার স্বামী এবং দক্ষিণ সুলাওয়েসি প্রদেশের কালেমপাং গ্রামের বাসিন্দারা।গ্রাম প্রধান সুয়ার্দি রোসি জানান, চার সন্তানের জননী ফরিদা বৃহস্পতিবার রাতে নিখোঁজ হন। তিনি বাড়ি ফেরেননি। ফরিদার স্বামী বলেন, “স্ত্রীর জিনিসপত্র খুঁজে পাওয়ার পর তার সন্দেহ বেড়ে যায়। এরপর গ্রামবাসীরা এলাকায় তল্লাশি চালান। কিছুক্ষণের মধ্যেই বিশাল পেটওয়ালা একটি অজগর সাপ দেখতে পান তারা।”গ্রামবাসীরা সাপটির পেট কাটতে মনস্থির করেন। এরপর পেট কাটতেই ফরিদার মাথা দেখা যায়। জামা কাপড় পরা অবস্থাতেই ফরিদাকে সাপের পেটে পাওয়া যায়।এ ধরনের ঘটনা খুবই বিরল বলে মনে করা হলেও সম্প্রতি কয়েক বছরে ইন্দোনেশিয়ায় অজগরের পেটে গিয়ে অনেকের মৃত্যু হয়েছে। গত বছর দক্ষিণ-পূর্ব সুলাওয়েসির তিনানগিয়া গ্রামের এক কৃষককে প্রায় আট মিটার লম্বা একটি অজগর সাপ খেয়ে ফেলে। গ্রামবাসীরা খবর পেয়ে সাপটিকে হত্যা করে।এর আগে ২০১৮ সালে দক্ষিণ-পূর্ব সুলাওয়েসির মুনা শহরে সাত মিটার লম্বা পাইথনের ভেতর ৫৪ বছর বয়সী এক নারীর মৃতদেহ পাওয়া যায়।তারও আগের বছর পশ্চিম সুলাওয়েসির এক কৃষকের দেহ পাম অয়েল বাগানে চার মিটার লম্বা পাইথনের পেট থেকে উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*