জ্বালানি তেল নিয়ে জনগণের সাথে প্রহসন সরকারের, খোঁড়া যুক্তি বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়

Posted by

অর্থনীতি প্রতিদিন: সমগ্র বিশ্বে যখন জ্বালানি তেলের দাম কমেছে সেখানে মাস ঘুরতে না ঘুরতেই সরকার জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি করেছে। সাধারণ জনগণ দেখছে প্রহসন। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় জনগণ জেনে যায় কোথায় কি ঘটছে। আর এটাও জানে দুনিয়ায় জ্বালানি তেলের দাম কমেছে। কিন্তু অতি আশ্চর্যের বিষয় বাংলাদেশের মতো দেশে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিতেই সরকারের যেন বেশি ফায়দা। কারণ সরকারের নিজস্ব যানবাহনে তো ভর্তুকি দিয়েই তারা গাড়ি চালায়। সেখানে কোটি কোটি টাকার জ্বালানি মূল্য শুভঙ্করের ফাঁকি। তাদের তো আর অতিরিক্ত পয়সা দিতে হয় না। এভাবেই খুব ছাড়লেন বাসাবোর এক বাসিন্দা। একজন প্রাইভেট চাকুরীজীবী সময় প্রতিদিন এর কাছে তার খুব তুলে ধরেন এভাবে তিনি বলেন সরকার তার নিজস্ব প্রয়োজনে আরাম আয়েশ করতে মশগুল। কিন্তু জনগণের দিকে খেয়াল থাকেনা। জ্বালানি তেলের এই মূল্যবৃদ্ধির কারণে বেড়ে যাবে জীবনযাত্রার নির্বাহের খরচ। দেশের জনগণের কল্যাণে যদি কিছু করতে হয় তাহলে সরাসরি এই জ্বালানি তেলের মূল্য যেভাবেই হোক ১০০ টাকা নিচে থাকা উচিত। এদিকে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমলেও ডলারের বিপরীতে টাকার দরপতনের কারণে জুন মাসে দাম কিছুটা বেড়েছে।বৃহস্পতিবার রাতে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নতুন দর নির্ধারণের কথা জানানো হয়, যা শুক্রবার মধ্যরাত থেকে কার্যকর হবে। নতুন দর অনুযায়ী, জুনে ভোক্তা পর্যায়ে ডিজেল ও কেরোসিনের বর্তমান মূল্য লিটারপ্রতি ১০৭ টাকা থেকে ৭৫ পয়সা বেড়ে ১০৭ টাকা ৭৫ পয়সা হবে। পেট্রোলের বর্তমান মূল্য লিটার ১২৪ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ২ টাকা ৫০ পয়সা বেড়ে ১২৭ টাকা এবং অকটেনের বিদ্যমান মূল্য ১২৮ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ২ টাকা ৫০ পয়সা বেড়ে ১৩১ নির্ধারণ করা হয়েছে। চলতি মে মাসেও জ্বালানি তেলের দাম লিটারপ্রতি সর্বোচ্চ আড়াই টাকা করে বেড়েছিল।এ মাসে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটার ১০৬ টাকা থেকে এক টাকা বাড়িয়ে ১০৭ টাকা, পেট্রোলের দাম ১২২ টাকা থেকে আড়াই টাকা বাড়িয়ে ১২৪ টাকা ৫০ পয়সা এবং অকটেনের দাম ১২৬ টাকা থেকে আড়াই টাকা বাড়িয়ে ১২৮ টাকা ৫০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য কিছুটা কমলেও মার্কিন ডলারের বিপরীতে টাকার অবমূল্যায়নের কারণে এ মূল্য সমন্বয় করতে হয়েছে।ডলারের বিনিময়মূল্য বাজারভিত্তিক করায় এক লাফে প্রতি ডলার ১১০ থেকে সম্প্রতি ১১৭ টাকায় পৌঁছায়।তবে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে তেল কেনাকাটায় এই বাড়তি দাম কতটা ভূমিকা রেখেছে তা পরিষ্কার নয়। গত মার্চ থেকে বিশ্ববাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে করে স্বয়ংক্রিয় ফর্মুলার আলোকে প্রতিমাসে জ্বালানি তেলের মূল্য সমন্বয় করছে সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*