আমেরিকার প্রথম জাতীয়তাবাদী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনান্ট ট্রাম্প

Posted by

বিশ্ব প্রতিদিন: অভিবাসীদের আগ্রাসনে বিপর্যস্ত আমেরিকা। বহু বর্ণের মানুষের মিশ্রনে আমেরিকার বহু আগেই হারিয়ে তার নিজের ইতিহাস। তাই স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষোভ তৈরি হয়েছে আমেরিকার অরিজিনাল সিটিজেনদের। তাদের একমাত্র ভরসা স্থান আসন্ন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন প্রার্থী ডোনান্ট ট্রাম্প। তাইতো তার জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। মামলা, আদালতে ছোটাছুটির মধ্যেও যুক্তরাষ্ট্রের পেসিডেন্ট পদে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন দৌঁড়ে অনেকটাই এগিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প। সর্বশেষ সাউথ ক্যারোলাইনায় দলের প্রাইমারিতে বড় ব্যবধানে হারিয়েছেন জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত নিকি হেইলিকে।নানা অনিশ্চয়তা কাটিয়ে দলীয় মনোনয়নের দৌড়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেশ সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যেই তিনি নিজের জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে।”বাইডেন, ইউ আর ফায়ারড্! গেট আউট, গেট আউট!”আসছে নভেম্বরে জো বাইডেনের চোখে চোখ রেখে এই কথাটা বলবেন, ফেব্রুয়ারিতেই সেই ঘোষণা দিয়ে রাখছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সাউথ ক্যারোলাইনায় দলের প্রাইমারিতে নিকি হেইলির বিরুদ্ধে বড় জয়ের পর রিপাবলিকানদের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হতে এক ধাপ এগিয়ে গেলেন তিনি।দ্বিতীয়বার তার প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন পাওয়া নিয়ে ব্যাপক সন্দেহ ছিল খোদ রিপাবলিকান দলের মধ্যেই।কিন্তু এখন মনোনয়নের দৌড়ে তার সাথে রয়েছেন মাত্র একজন প্রার্থী, তাও ট্রাম্প থেকে বেশ খানিকটা পিছিয়ে।সাউথ ক্যারোলাইনা হেইলির নিজের রাজ্য হওয়ায় সাবেক রাষ্ট্রপতির জয়টা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যদিও নিকি হেইলি এখনই লড়াই ছাড়ছেন না।তিনি অন্ততঃ ‘সুপার টুইসডে’ পর্যন্ত প্রতিযোগিতায় থাকার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন। মার্চের পাঁচ তারিখ সেই মঙ্গলবার। সেদিন ১৬ টি রাজ্যের রিপাবলিকানরা তাদের রায় জানাবেন।সাউথ ক্যারোলাইনার জয় উদযাপন করার সময় মি. ট্রাম্প মিজ হেইলির কথা একবারও উল্লেখ করেননি। তার নজর নভেম্বরের সাধারণ নির্বাচনের দিকে। হোয়াইট হাউসে তারই উত্তরসূরি বাইডেনের সাথে একটি ‘রি-ম্যাচ’ বা পুনঃ লড়াইয়ের সম্ভাবনা এখন প্রবল।শনিবারের ফলাফলের পরে দলের “ঐক্যের” প্রশংসা করেছেন ট্রাম্প। বলেছেন, “এমন মনোভাব আগে কখনও ছিল না। আমি রিপাবলিকান পার্টিকে এতটা ঐক্যবদ্ধ কখনও দেখিনি।” অর্থনীতি টেনে তুলবার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*