মুন্সীগঞ্জে চাঁদা না দেওয়ায় প্রবাসীর বাড়িতে ভাংচুর

Posted by

মহসিন রেজা মুন্সীগঞ্জ: টংগীবাড়ি উপজেলার পশ্চিম আলদি গ্রামের রাস্তা নির্মাণ কাজে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে স্থানীয় ইউপি সদস্য। চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হলে বাড়িতে এসে ভাংচুর ও প্রবাসী মোঃ মজিবর রহমানকে মারধর করে প্রান নাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।আলদি বাজারের নিকটবর্তী এলাকা পশ্চিম আলদি গ্রাম। যোগাযোগের নেই কোন নির্দিষ্ট রাস্তা। ঐ এলাকায় প্রায় দুই শতাদিক পরিবারের বসবাস ও রয়েছে একটি সরাসরি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বর্ষায় একটু বৃষ্টি হলে বন্যার পানি আসলে বাচ্চারা স্কুলে যেতে পারে না। এলাকাবাসীর স্বীকার হতে হয় নানা রকম ভোগান্তির।এলাকার দূরদশার কথা চিন্তা করে মোঃ নুরহাস দেওয়ানের ছেলে মুজিবুর হোসের স্থানীয়দের নিয়ে নিজ অর্থায়নে একটি রাস্তা নির্মাণের উদ্যোগ নেয়।পরে ঐ রাস্তার কাজটি কে শিমুলিয়া ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মো: জাকির রাস্তার কাজটি সে নিজে না করতে পারায় স্থানীয় যুবকদের দিয়ে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে।চাঁদার টাকা না দিতে চাইলে গত শুক্রবার এলাকার মেম্বার মোঃ জাকির হোসেন রাস্তা নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়। প্রবাসী আহত মজিবরের বোন নার্গিস আক্তার জানায়, শনিবার রাকিব হালদার (২৪), আবু কালাম (২৮), রিপন হালদার (২৬), নাঈম হালদার (১৯) সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩/৪ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে রাস্তার কাজ বন্ধ করে দেয় ও আমার ভাইকে মারধর করে বাড়ি ভাংচুর করে আমাদের প্রান নাশের হুমকি দেয়। এসময় রাকিব হালদার আমার ভাই মুজিবুরের দিকে পিস্তল তাক করে ৬০ হাজার টাকা ও আমার গলার ১ ভরি ওজনের স্বর্নের চেইন নিয়ে যায়।এ বিষয়ে টংগীবাড়ি থানায় প্রবাসী মজিবরের বোন একটি অভিযোগ দায়ের করেন।এ বিষয়ে মোঠোফেনে কে শিমুলিয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো: জাকির জানান,সামনে ইউপি নির্বাচন তাই আমাকে হেও করার জন্য একটি নাটক করেছে।বাড়িতে হামলা,ভাংচুর এর কথা জানতে চাইলে তিনি জানান পাশের বাড়ির জমির মলিকের সাথে ঝামেলা আছে তবে আমি চাঁদা দাবি করিনি করিনি আর কে বাড়িতে হামলা চালিয়েছে তা আমি জানিনা তবে শুনেছি বাড়িতে ভাংচুর হয়েছে। ট্ঙ্গীবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশীদ জানান, এ বিষয়ে টংগীবাড়ি থানায় প্রবাসী মজিবরের বোন একটি অভিযোগ দায়ের করেন।ট্ঙ্গীবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশীদ জানান, এব্যাপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি খাতিয়ে দেখা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*